ফিট থাকতে পান করুন পালং শাকের সবুজ স্মুদি

ফিট থাকতে পান করুন পালং শাকের সবুজ স্মুদিওজন কমানোর চেষ্টা করছেন? তাহলে স্মুদি পান করা আপনার জন্য উপকারী। ওজন কমানোর চেষ্টা করতে গিয়ে অনেকেই অনেক চটকদার ডায়েটের ফাঁদে পা দেন। এসব ডায়েট খুব দ্রুত ওজন কমানোর প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু লম্বা সময় ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য এই ডায়েট কোনো কাজেই আসে না।

আপনি যদি স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন কমাতে চান, তাহলে সুষম ও স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে, শরীরের মেটাবলিজম যাতে ভালোভাবে চলে।  ধীর মেটাবলিজম ওজন বাড়ার জন্য দায়ী, অন্যদিকে মেটাবলিজম বাড়াতে পারলে সহজেই ওজন নিয়ন্ত্রণ করা যায়। মেটাবলিজম ঠিক রাখতে আপনার কাজে আসতে পারে পালং শাকের স্মুদি।

পালং শাক পুষ্টি উপাদানে পরিপূর্ণ এক পাওয়ার হাউজ।  পালং শাক খাওয়া যেমন পুষ্টিকর, তেমনই তা অনেক স্বাস্থ্য সমস্যাকেও দূরে রাখে।  ভিটামিন বি বেশি থাকার কারণে এই সবুজ শাকটি মেটাবলিজম বাড়াতে পারে। অন্যদিকে এতে আয়রন আছে, যা আমাদের পেশীতে অক্সিজেন সরবরাহ করে ও ফ্যাট পোড়ায়।  পালং শাক কাঁচা বা রান্না করে খাওয়া যায়। তবে তা দিয়ে স্মুদি তৈরি করে খেলে আপনি স্বাস্থ্য সুবিধা বেশি পাবেন।  সারা বছরই পান করতে পারেন এই স্মুদি। পালং শাকের সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন কিছু মৌসুমি ফল ও সবজি।

স্মুদি তৈরি করাটা খুবই সহজ। তবে কোনো কিছু করার আগে অবশ্যই পালং শাক ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। কারণ এর পাতায় কীটনাশক, কৃত্রিম রঙ, ধুলোবালি ও জীবাণু থাকতে পারে।  ধোয়ার পর পাতাগুলোকে কুচি করে ব্লেন্ডারে দিন। এর পাশাপাশি অন্য কিছু উপাদানও যোগ করতে পারেন।  ব্লেন্ড করুন যতক্ষণ না মিহি হয়ে আসে।

দেখে নিন পালং শাকের স্মুদি তৈরির কয়েকটি রেসিপি-

১) মেটাবলিজম বুস্টিং গ্রিন স্মুদি

১টি খোসা ছাড়ানো কমলা, আধা কাপ স্ট্রবেরি, ১ কাপ পালং শাক ও ১ কাপ আমন্ড মিল্ক একসাথে ব্লেন্ড করে নিন। এতে থাকা পালং শাক ও আমন্ড মিল্ক দুটোই মেটাবলিজম বাড়াতে কাজে আসে।

২) অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট স্মুদি

আধা কাপ স্ট্রবেরি, সিকি কাপ ব্লুবেরি, ১ কাপ পালং শাক, সিকি কাপ দই ও ১ কাপ পানি ব্লেন্ড করে নিন। এতে থাকা ফলের কারণে এই স্মুদি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর। এছাড়া স্ট্রবেরিতে থাকা ভিটামিন সি মেটাবলিজম বাড়ায়।  ব্যায়ামের পর এই স্মুদি পান করতে পারেন, কারণ তা পেশীর ব্যথা কমায়।

৩) স্ট্রবেরি-বানানা গ্রিন স্মুদি

গ্রিন স্মুদি পান করতে অনেকেই আপত্তি করেন কারণ কাঁচা সবজির স্বাদে তারা অনভ্যস্ত। তারা এই স্মুদিটি দিয়ে শুরু করতে পারেন, কারণ এতে পালং শাকের স্বাদ পাওয়া যায় না বললেই চলে।  আধা কাপ স্ট্রবেরি, ১টি কলা, ১ কাপ পালং শাক ও আধা কাপ ভ্যানিলা ফ্লেভারের আমন্ড মিল্ক ব্লেন্ড করে এটি তৈরি করে নিতে পারেন।

৪) ইলেকট্রিক গ্রিন বুস্ট স্মুদি

এই স্মুদির স্বাদ যেমন ভালো, তেমনি তা দেখতেও দারুণ উজ্জ্বল সবুজ রঙের। সিকি কাপ আনারস, ১টি কমলা, ১ কাপ পালং শাক ও ১ কাপ আমন্ড মিল্ক ব্লেন্ড করে নিন।

৫) গ্রিন টপিকাল সানরাইজ স্মুদি

এই রেসিপিতে তৈরি স্মুদিটির স্বাদ মিষ্টি, আর তাতে থাকে অনেক বেশি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন।  এর জন্য সিকি কাপ আনারস, ১টি কমলা, ১টি গাজর, ১ কাপ পালং শাক ও ১ কাপ পানি ব্লেন্ড করে নিন।

You might also like

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.