জেলার খবর

স্বামীকে আটকে নববধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ২ জন গ্রেফতার

স্বামীকে আটকে রেখে নববধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুই জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) ভোরে নগরীর একাধিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৭ সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাহমুদুল হাসান মামুন এ তথ্য জানিয়েছেন। গ্রেফতার দুই জন নববধূকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলার এজাহারভুক্ত আসামি বলে তিনি জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে পটিয়া কোলাগাঁও ইউনিয়নের ফোরকান মাঝির ছেলে জুয়েল (২৮) ও একই এলাকার ছাত্তারের ছেলে মিন্টু (৩৩)। এদের মধ্যে জুয়েলকে পতেঙ্গার কাটগড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে তার দেওয়া তথ্যে মিন্টুকে বাকলিয়ার রাজাখালী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মো. মাহমুদুল হাসান মামুন বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, গত ৭ জুন স্বামীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে তাদের পথরোধ দুর্বৃত্তরা। এরপর ওই নারী সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন। এ ঘটনায় গত ১৪ জুন ওই নারী থানায় মামলা দায়ের করেন। তার দাবি, তার স্বামীকে আটকে রেখে দুর্বৃত্তরা এ ঘটনা ঘটায়। এরপর আসামিদের গ্রেফতার শুরু করে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার ভোরে পতেঙ্গার কাটগড় ও বাকলিয়া রাজাখালী থেকে তাদের দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়। অপর আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, গত ৪ জুন বোয়ালখালী উপজেলার এক যুবকের সঙ্গে পারিবারিকভাবে ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের ৩ দিন পর গত ৭ জুন বাপের বাড়ি চট্টগ্রামের পটিয়া এলাকা থেকে স্বামীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি। রাত পৌনে ৯টার দিকে কোলাগাঁওয়ের উত্তরপাড়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার সামনে পৌঁছলে হঠাৎ ৪ যুবক তাদের পথরোধ করে। এরপর তাদের টেনেহিঁচড়ে চিড়িঙ্গার পুকুরপাড় নামে একটি জায়গায় নিয়ে যায়। সেখানে স্বামী আরিফকে আটকে রেখে ওই চার যুবক তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে রাত ১২টার দিকে তাদের সেখানে ফেলে রেখে চার ধর্ষক চলে যায়।

এই বিভাগের আরও খবর

একাদশ জাতীয় সংসদ ২০১৮ এর নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোঃ সাদেক খান

স্টাফ রিপোর্টার

আগামী ১৫-১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা

মঙ্গলবার থেকে ইফতার বিক্রি করতে পারবে রেস্তোরাঁগুলো