সৌদিকে নিন্দা প্রস্তাবে কংগ্রেসে ভোট

২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যা করা হয়। ছবি: সংগৃহীত
২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যা করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

ইয়েমেন যুদ্ধ ও সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যায় সৌদির প্রতি নিন্দা প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের সিনেটে ভোট অনুষ্ঠিত হবে আজ। এ ছাড়া কংগ্রেসের দুই কক্ষের প্রতিনিধিরাই আগামী বছর সৌদির ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারির প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানায়, দেশটির কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন সিনেটর বুধবার বলেছেন, আগামী জানুয়ারিতে কংগ্রেস শুরুতেই সৌদিকে আর্থিক শাস্তি ও অস্ত্র বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে অগ্রিম আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

সর্বশেষ করা সিনেটরদের এই মন্তব্যে এটা পরিষ্কার যে, সিনেটররা চাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে ক্ষমতা থেকে সরাতে।

ক্যাপিটাল হিলে এক সংবাদ সম্মেলনে কংগ্রেসে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মিত্র সিনেটর গ্রাহাম বলেন, সৌদি আরবে আমাদের বন্ধুরা, পরিবর্তন ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের সঙ্গে সম্পর্ক চলতে পারে না। আর এটা আপনাদেরকেই ঠিক করতে হবে, আসলে কি পরিবর্তন করা দরকার।

গ্রাহাম বলেন, আমার দৃষ্টিতে বর্তমানে যে অবস্থা বিদ্যমান তা চলতে পারে না। কারণ বর্তমানে একটি দেশের সঙ্গে একজন ব্যক্তির সম্পর্ক চর্চা হচ্ছে। আর এই ব্যক্তি হলেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান, যিনি খুবই ভয়ঙ্কর, খুব বেপরোয়া এবং বিভ্রান্ত। তাই এই অবস্থায় পরিবর্তন ছাড়া আমি সৌদি আরবের সঙ্গে কাজ করতে পারি না।

কংগ্রেসের সদস্যরা বলছেন, ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থা যুবরাজ মোহাম্মদ নির্দেশক বলে মূল্যায়ণ করেছে। এ ছাড়া যুবরাজই প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে ২০১৫ সালে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক অভিযান ঘোষণা করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.