আন্তর্জাতিক খেলাধুলা ফুটবল

ফ্লয়েড হত্যা : কালো মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় শরিক জর্ডান-শচিনরা

জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে পড়েছে ক্যরিবীয় কিংবদন্তি স্যার ভিভ রিচার্ডস এবং ইংলিশ কিংবদন্তি স্যার ইয়ান বোথামের এই ছবি

জর্জ ফ্লয়েডকে অমানবিক কায়দায় হত্যা করার পর এর প্রতিবাদে গর্জে উঠেছিলেন কিংবদন্তি আমেরিকান বাস্কেটবল তারকা মাইকেল জর্ডান। এবার ‘‌বর্ণবৈষম্য’‌ শব্দটাকে দুমড়ে-মুচড়ে দিয়ে কালো চামড়ার মানুষদের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠায় এবং ফ্লয়েড হত্যার বিচার পেতে আরও এক পদক্ষেপ নিলেন তিনি।

কালোদের অধিকার, জাতিগত সমতা আর সামাজিক ন্যায় প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে পাশে থাকতে ১০ কোটি ডলার দান করার ঘোষণা দিয়েছেন আমেরিকার সাবেক বাস্কেটবল তারকা এবং তার বিখ্যাত জর্ডান ব্র‌্যান্ড। যা আগামী দশ বছর কালো মানুষদের লড়াইয়ে দেয়া হবে।

জর্জ ফ্লয়েডের নৃশংস হত্যার প্রতিবাদে এখন উত্তাল আমেরিকা। যার রেশ ছড়িয়ে পড়েছে বাকি বিশ্বেও। কয়েকদিন আগেই কিংবদন্তি এনবিএ তারকা জর্ডান বলেছিলেন, ‘অনেক হয়েছে। আমি প্রতিবাদীদের সঙ্গে রয়েছি। আমি একই সঙ্গে দুঃখিত, ব্যথিত এবং ক্ষুব্ধ।’ এবার শুধু মুখে নয়,কাজেও করে দেখালেন তিনি।

জর্ডান এবং তার কোম্পানির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্রত্যেক কালো মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য, তাদের উন্নতির জন্য আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। যতদিন না এই বর্ণবিদ্বেষের সমাপ্তি না ঘটে। তার জন্য একশো মিলিয়ন ডলার দান করছি, যা আগামী দশ বছর কৃষ্ণাঙ্গ মানুষের অধিকার রক্ষার লড়াইয়ে পথ দেখাবে।’

কিছুদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে ৫৭ বছর বয়সী জর্ডান বলেছিলেন, ‘আমি রাজনীতির মানুষ নই। একজন বাস্কেটবল খেলোয়াড়। আমার খেলোয়াড়ি জীবন দিয়ে একটা আদর্শ তৈরি করে যেতে চাই। সেটাই করব। যদি না পারি, তা হলে বুঝে নেব, আমি সেই ব্যক্তি নই, যাকে সবাই অনুসরণ করতে পারে।’

গত সোমবার ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে জর্ডান বলেছিলেন, ‘যন্ত্রণা যেমন পাচ্ছি, তেমন ভীষণ রাগও হচ্ছে। যারা বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে লড়ছেন, আমি তাদের পাশেই আছি।’‌ সোমবার‌ তীব্র নিন্দা করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেন জর্ডান। যেখানে তিনি লিখেছিলেন, ‘আমি প্রচণ্ড দুঃখিত, ব্যথিত এবং ক্ষুব্ধ। প্রত্যেকের ব্যথা, হতাশা এবং ক্ষোভ বুঝতে পারছি। যারাই বর্ণবিদ্বেষ এবং হিংসার বিরুদ্ধে, তাদের পাশে আমি রয়েছি।’‌

এই বিভাগের আরও খবর

আজ বিশ্ব বাবা দিবস, ভালো থাকুক পৃথিবীর সব বাবা

সৌদিকে নিন্দা প্রস্তাবে কংগ্রেসে ভোট

লাদাখে উত্তেজনার মধ্যে এবার ডোকলামেও সেনা বাড়াল চীন