স্বাস্থ্য

স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক গোল টেবিল বৈঠক

স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক গোল টেবিল বৈঠক

হাছিবুর রহমানঃ মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সম্প্রতি পিআইবি তে অনুষ্ঠিত হলো এক গোল টেবিল বৈঠক। অথেনটিক ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন লি: এবং স্পার্কেল ফিটনেস স্টুডিও যৌথভাবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেছে। ১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসকে উপজীব্য করে বৈঠকের মূল স্লোগান নির্ধারন করা হয় ‘ডায়াবেটিস ও স্বাস্থ্য সচেতনতায় গণমাধ্যমের ভূমিকা’। অনুষ্ঠানের শুরুতেই মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন স্পার্কেল ফিটনেস স্টুডিও’র সিইও তানভীর আমান। আলোচনায় ডাক্তার, পুষ্টিবিদ, ফিটনেস ট্রেইনার, টিভি ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব এবং গণমাধ্যমের কর্মীরা অংশ নেন। আলোচনায় ডা.এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান এবং ডা.এ এইচ এম আফজালুল হক বলেন, শুধু মাত্র লক্ষণ নেই বলে ধরে নেয়া যাবে না যে শরীরে ডায়াবেটিস নেই। প্রত্যেক সচেতন ব্যক্তিরই উচিত ৩ মাস অথবা ৬ মাস অন্তর অন্তর রক্ত পরীক্ষা করানো। এছাড়াও মানসিক চাপ যে কোন রোগ সংগঠিত হওয়ার বড় উপায়। অবশ্যই মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকার উপায় খুঁজে নিতে হবে। নাট্য ব্যক্তিত্ব আজিজুল হাকিম বলেন, পরিমিত খাদ্যাভাস এবং সুঅভ্যাসগুলো পরিবার থেকেই চর্চা করতে হবে। তা না হলে পরবর্তী প্রজন্ম সঠিক গাইড পাবেনা। সে রেশ ধরে জিনাত হাকিম বলেন আমি আমার পরিবারে স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্যাভাস চর্চা করছি যা সবারই করা উচিত। দেশখ্যাত ফটোগ্রাফার চঞ্চল মাহমুদ বলেন, আমি নিজেও দীর্ঘদিনের ডায়াবেটিস রোগী। তারপরেও বলবো মনোবল শক্ত রাখতে হবে, নিয়মিত হাটতে হবে। মাদক বা বাজে অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। তবেই সুস্থ জীবনে ফেরা সম্ভব। আলোচকরা আরও বলেন সুস্থ্য খাদ্যাভাসের তালিকা তৈরি করা উচিত সবার এবং যেসব খাদ্যকে পুষ্টিকর খাবার বলা হচ্ছে তা বিষমুক্ত রাখতে সরকারের সহযোগীতাও প্রয়োজন। অনুষ্ঠানের সমাপ্তি বক্তব্য পেশ করেন অথেনটিক ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা.এ এইচ এম আফজালুল হক। পরিশেষে সভাপ্রধান পিআইবি’র মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ অনুষ্ঠানের আয়োজক এবং আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বাংলাদেশ টাইমস  

এই বিভাগের আরও খবর

নারায়ণগঞ্জ থেকে পালিয়ে গোপালগঞ্জে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত

সাংবাদিক আবেদ খান সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত

ফিট থাকতে পান করুন পালং শাকের সবুজ স্মুদি